Google Analytics কী? এর সুবিধা-অসুবিধা এবং সেটাপ করার পদ্ধতি!

একটা ওয়েবসাইট কি ধরনের পারফর্ম করছে, ওয়েবসাইটে কতটা ক্লিক আসছে, কতটুকু ইম্প্রেশন বাড়ছে, কি কি ধরনের ট্রাফিক আসছে, কোন দেশ থেকে ট্রাফিক বেশি বেশি আসছে, কোন কী-ওয়ার্ডের জন্য ট্রাফিক আসছে এই ছোট্ট ছোট্ট বিষয়গুলা মুলত টুলস এর মাধ্যমে বের করা যায় আর এজন্য গুগলের একটা নিজস্ব টুল রয়েছে যার নাম হলো Google Analytics

বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের দুনিয়ায় Google Analytics একটি পরিচিত নাম। মার্কেটে যতগুলো ওয়েব Analytics আছে যেমন Yandex Metrica, Adobe Analytics ইত্যাদি এগুলোর মধ্যে বর্তমানে গুগল এনালাইটিক্সের প্রায় ৩৬% মার্কেট শেয়ার আছে। এখন আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে আসা ট্রাফিক বা ভিজিটরের পুরোপুরি অবস্থান জানতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য Google Analytics সেটাপ করতে হবে

এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা জানার চেষ্টা করবো, গুগল এনালাইটিক্স কি? এটি ব্যাবহারের সুবিধা-অসুবিধা গুলো কী কী এবং একটা ওয়েবসাইটের জন্য কিভাবে এটি সেটাপ করতে হয় সেই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো

{getToc} $title={ Table of Content }

What is Google Analytics? (গুগল এনালাইটিক্স কী)

Google Analytics মূলত একটি ওয়েব অ্যানালিটিক'স টুল। সহজ ভাবে বললে, এটা একটা ওয়েবসাইটের প্রাণ যেটা ব্যাবহারে একটা ওয়েবসাইটে আসা সকল ট্রাফিক বা ভিজিটরের বিহেভিয়ার বা আচরণ বিধি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা পাওয়া যায়

অর্থাৎ একটা ওয়েবসাইটে কি পরিমান ভিজিটর আসে, তারা কি ধরনের সোর্স থেকে আসে, এসে কতক্ষন সময় ব্যয় করে, সে সময়ে ওয়েবসাইটের কোন পেইজগুলো ভিজিট করে, এর জন্য তারা কি ধরনের ডিভাইস ব্যাবহার করে এবং সেই ডিভাইসে কোন ধরনের অপারেটিং সিস্টেম ব্যাবহার করছে, কোন ব্রাউজার ব্যাবহার করছে, এদের মাঝে কতজন ছেলে বা মেয়ে, তাদের বয়স কত?, তারা কোন শহর বা দেশ থেকে ভিজিট করতেছে, ওয়েবসাইটে এসেই চলে যাচ্ছে কিনা অর্থাৎ একটা ওয়েবসাইটে আসা একজন ট্রাফিক বা ভিজিটরের পুরোপুরি বিহেভিয়ার বা আচরণবিধি বুঝা যায় Google Analytics এর মাধ্যমে

NOTE: আপনি শুধুমাত্র গুগল এনালাইটিক্স সেটাপ করার জন্য ফাইবার এ আলাদা করে রিপোর্ট দিতে পারবেন বা গিগ ক্রিয়েট করতে পারবেন!

Benefits of Google Analytics (সুবিধা সমূহ) 

যদিও এটা একটা ওয়েব-অ্যানালিটিক'স টুল তারপরেও এটি দিয়ে একই সাথে ওয়েবসাইট এবং মোবাইল অ্যাপ পরিমাপ করা যায়। মোট কথা ওয়েবসাইটে আসা একজন ভিজিটরের চৌদ্দগুস্টি সম্পর্কে ধারনা নিতে পারবেন

➥ একদমই ফ্রি! এর জন্য কোন প্রকার অর্থ প্রদান করতে হবে না। আপনি এই টুলসে যে পরিমান ফিচার পাবেন সেটা মার্কেটে থাকা অন্য কোন টুলসে পাবেন না
➥ আপনার ওয়েবসাইটের সার্চ কনসোল এর সংগে গুগল এনালাইটিক্স কে যোগ করলে সব তথ্য এনালিটিক্স ড্যাশবোর্ডের মধ্যেই দেখতে পারবেন
➥ গুগল এডসেন্স একাউন্টকে গুগল এনালিটিক্স এর সাথে যুক্ত করতে পারেন এবং ড্যাটা গুলো ড্যাশবোর্ডের মধ্যে সহজেই দেখতে পারেন
➥ গুগল এনালাইটিক্স একবার সেটাপ করার পরে আপনাকে আর কিছু করার দরকার হবে না কারন এটা অটোমেটিক ভিজিটরের সমস্ত ড্যাটা কালেক্ট করে থাকে
➥ ই-কমার্স ওয়েবসাইট এর ক্ষেত্রে কোন প্রডাক্ট বেশি বার ভিউ হয়েছে বা বেশি বার বিক্রি হয়েছে মুলত ওয়েবসাইটের ই-কমার্সের কনভার্সন রেট কত এই সমস্ত ড্যাটা আপনি গুগল অ্যাডসেন্স রিপোর্ট থেকে দেখতে পারেন আর গুগল অ্যাডসেন্সকে যদি গুগল এনালাইটিক্স এর সাথে যুক্ত করেন তাহলে আপনি গুগল এনালিটিক্স ড্যাশবোর্ডের মধ্যেই দেখতে পারবেন
➥ গুগল এনালাইটিক্স সেটাপ করার পরে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গুগল এনালাইটিক্স ড্যাশবোর্ডে আপনার ওয়েবসাইট ভিজিটরের সকল তথ্য জানতে পারবেন

সুতরাং মনে রাখবেন আপনি যে উদ্দেশ্যেই আপনার ওয়েবসাইট ব্যবহার করুন না কেন গুগল এনালাইটিক্স আপনার জন্য একটি আদর্শ ওয়েব এন্ড প্ল্যাটফর্ম

Limitations of Google Analytics (অসুবিধা সমূহ)

গুগল এনালাইটিক্স এর অনেক সুবিধা থাকা সত্বেও এর কিছু অসুবিধা রয়েছে যেমনঃ

➥ গুগল এনালাইটিক্স মধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ মেট্রিক এবং ডাইমেনশন রয়েছে এবং এর থেকে পাওয়া তথ্য গুলি সম্পূর্ণভাবে অ্যানোনিমাস হওয়াতে সে সকল তথ্য দেখে আপনি ব্যাক্তিগত ভাবে কোন ট্রাফিকের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন না
➥ গুগল এনালাইটিক্স ওয়েবসাইটের হিটম্যাপ প্রদান করে না। সেই জন্য আপনি আপনার ওয়েবসাইটের হিটম্যাপ দেখতে পারবেন না এর জন্য আপনাকে অন্য কোন থার্ডপার্টি টুলসের সহযোগীতা নিতে হবে
➥ ভিজিটর রেকর্ডিং এর সুবিধা নেই অর্থাৎ একজন ট্রাফিক আপনার ওয়েবসাইটটি কিভাবে ভিজিট করলো এটা দেখা সম্ভব না যদিও অন্যান্য ওয়েব-অ্যানালিটিক'স টুল যেমন Yandex Metrica তে সম্ভব

How to Setup Google Analytics (সেটাপ পদ্ধতি - ওয়ার্ডপ্রেস)

Google Analytics এর সুবিধাগুলো ভোগ করতে হলে আপনাকে অবশ্যই একটা ওয়েবসাইট থাকতে হবে এবং সেটাকে সার্চ ইঞ্জিনে সাবমিট করতে হবে তাহলে আপনি সকল ভিজিটরের ড্যাটা গুলো সহজেই দেখতে পারবেন। এখন আপনার ওয়েবসাইটি যদি ওয়ার্ডপ্রেসে হয়ে থাকে তাহলে নিচের দেয়া পদ্ধতি গুলো অনুসরন করে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য গুগল এনালাইটিক্স সেটাপ করতে পারেন

ধাপ-১ঃ প্রথমে গুগল ক্রম ওপেন করে এই লিংকে ক্লিক করুন তাহলে নিচের দেয়া ছবির মত একটা ইন্টারফেস দেখতে পাবেন। এখান থেকে Start measuring বাটন এ ক্লিক করুন

ধাপ-২ঃ প্রথম ধাপ কমপ্লিট করলে নিচের দেয়া ছবির মত ইন্টারফেইস দেখতে পাবেন এখানে আপনাকে প্রথমে গুগল এনালাইটিক্স একাউন্ট সেটাপ করতে হবে এর জন্য মার্ক করা যায়গায় আপনি আপনার নাম দিন। নাম না দিয়ে আপনার ওয়েবসাইটের নাম দিতে পারেন। তবে মনে রাখা উচিত একটা একাউন্ট এর আন্ডারে আপনি অনেক গুলো প্রপার্টি ইউজ করতে পারেন। অতএব আপনি এখানে নিজের অথবা যার জন্য সেটাপ করছেন তার নাম দিতে পারেন। তারপরে নেক্সট এ ক্লিক করুন

ধাপ-৩ঃ পরের ধাপ হচ্ছে প্রপার্টি সেটাপ। এখানে থেকে প্রপার্টি নাম (ওয়েবসাইটের নাম দেয়া যেতে পারে), লোকেশন (যেখানের জন্য সেটাপ করছেন, যদি ক্লাইন্ট এর জন্য করেন তাহলে তার লোকেশন অনুযায়ী দিতে হবে) এবং কারেন্সি সেট করে নেক্সট এ ক্লিক করুন

ধাপ-৪ঃ এই ধাপে আপনাকে আপনার বিজনেস ইনফরমেশন দিতে হবে এর জন্য আপনার ওয়েবসাইটের ক্যাটাগরি, বিজনেসের ধরন এবং সকল চেকলিস্ট গুলো টিক দিয়ে ক্রিয়েট এ ক্লিক করুন। এরপরে আপনাকে একটা Google analytics terms of service agreement এর জন্য পেইজ আসবে সেখানে  টিক দিয়ে I accept  বাটনে ক্লিক করুন

ধাপ-৫ঃ এবার আপনি প্লাটফর্ম সিলেক্ট করুন। যেহেতু এটা ওয়েবসাইটের জন্য এজন্য Web এ ক্লিক করুন। তারপরে নিচের দেয়া ছবির মত একটা ইন্টার ফেইস দেখতে পাবেন। এখানে আপনি প্রথমে ওয়েবসাইটের এড্রেস এবং স্ট্রিমিং নাম দিয়ে ক্রিয়েট স্ট্রিম বাটনে ক্লিক করুন 

ধাপ-৬ঃ এরপরে আপনি ওয়েব স্ট্রিং ডিটেইলস দেখতে পাবেন। নিচের দেয়া ছবি দেখে কোড টুকু কপি করুন

ধাপ-৭ঃ ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ডে এসে প্লাগিন ইন্সটল করার জন্য প্লাগিন এ ক্লিক করে Add new তে ক্লিক করুন তারপরে Insert Headers and Footers প্লাগিন ইন্সটল করুন এবং এক্টিভেট করুন

ধাপ-৮ঃ এখন, সেটিংস এসে “Insert Headers and Footers” অপশনে ক্লিক করুন তাহলে নিচে দেয়া ছবির মত ইন্টারফেইস দেখতে পাবেন এখানে <head> সেকশনে আপনার কপি করা কোড টুকু কপি করে সেভ করুন 

ধাপ-৯ঃ এবার গুগল এনলাইটিক্স এ এসে রিপোর্ট এ ক্লিক করুন তাহলে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের সকল এক্টিভিটি দেখতে পারবেন। তবে কিছুটা সময় নিতে পারে

যদি এই প্রসেস গুলো অনুসরন করতে সমস্যা হয় তাহলে আপনি এই ভিডিও দেখেও আপনার ওয়েবসাইটের জন্য গুগল এনালাইটিক্স সেটাপ করতে পারেন



🔊 আমার মতামত - আশা করি গুগল এনালাইটিক্স কি? ক্যানো ব্যাবহার করা উচিত এর সুবিধা গুলো সম্পর্কে ক্লিয়ার ধারনা পেয়েছেন পাশাপাশি একটা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট এর জন্য কিভাবে এটা সেটাপ করতে হয় সেগুলোও দেখেছেন। আরো যদি জানার ইচ্ছে থাকে তাহলে কমেন্ট করতে পারেন। ভালো থাকবেন, ভালো রাখবেন, ভালোবাসবেন নিজেকে নিজের কাছের মানুষটিকে এবং কাছের মানুষগুলোকেও আর হ্যা সময়কে সময় দিলে সময় শেষ হলে সময়ের ফল নিজে থেকেই হাতের মুঠোয় এসে ধরা দেয়। ধন্যবাদ আপনাকে পুরো লিখাটি পড়ার জন্য

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Please validate the Captcha

নবীনতর পূর্বতন

যোগাযোগ ফর্ম